1. admin@nplustv.com : admin : Shadat Hossain Raju
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন

চট্টগ্রামে বদলি জেল খাটা সেই মিনু আক্তারকে মুক্তির নির্দেশ হাইকোর্টের

Ferdous alom apu
  • আপডেট সময়ঃ সোমবার, ৭ জুন, ২০২১
  • ৩৭৬ বার পড়া হয়েছে

চট্টগ্রামে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি কুলসুম আক্তারের হয়ে জেল খাটা মিনু আক্তারকে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে জেলা নারী ও শিশু আদালতের পিপিসহ ৩ আইনজীবিকে তলব করা হয়েছে।

মিনুর জেল খাটার বিষয়ে শুনানি শেষে সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মহিউদ্দিন শামীমের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ
এ আদেশ দেন।

আদালতে মিনুর পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. শিশির মনির। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ।

শুনানিতে জেলে থাকা নিরপরাধ মিনুর পুরো ঘটনা তুলে ধরে আইনজীবী শিশির মনির লেন, ‘বিগত দুই বছরে আমাদের দেশে এমন ২৬টি ঘটনা ঘটেছে। একজনের নামে আরেকজন জেলে থাকে।’ ‘আসল আসামি শনাক্তে অনেক পদ্ধতি আছে। এ বিষয়ে আমি আরও
লিখিতভাবে আদালতকে জানাব।’

আদালত বলেন, ‘আমরা মনে করি এভাবে যদি রিয়েল –আসল  কালপ্রিট বা দোষী অর্থের বিনিময়ে হোক, অথবা বিভিন্ন কৌশলের মাধ্যমে নিজেকে বাঁচিয়ে অন্য নিরপরাধ লোককে জেলের মধ্যে আটক রাখে সেটা দুর্ভাগ্যজনক।’

মুঠোফোন নিয়ে কথা কাটাকাটির জেরে ২০০৬ সালের ৯ জুলাই চট্টগ্রাম নগরীর রহমতগঞ্জ একটি বাসায় পোশাককর্মী কোহিনূরকে হত্যা করা হয়। ২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর এই মামলার রায়ে কুলসুমকে যাব্জ্জীবন কারাদন্ড দেন আদালত। সাজা হওয়ার আগে মামলার প্রকৃত আসামী কুলসুমা আক্তার  ২০০৭ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত কারাগারে ছিলেন। এরপর তিনি জামিনে বের হন। সাজা হওয়ার পর  ২০১৮
সালের ১২ জুন কুলসুমা সেজে মিনু আক্তার কারাগারে আসেন। কারা রেজিস্ট্রারে
থাকা দুজনের ছবির মিল না থাকায় গত ১৮ মার্চ চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয়
কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. শফিকুল ইসলাম খান বিষয়টি আদালতের নজরে
আনেন।

পোষ্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর পড়ুন
© কপিরাইটঃ- এন প্লাস টিভি (২০২০-২০২২)
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD