1. admin@nplustv.com : admin : Shadat Hossain Raju
শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০২:০২ অপরাহ্ন

কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে একই পরিবারের তিনজন খুন

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ৩৩৯ বার পড়া হয়েছে

মাদক সেবন নিয়ে চলা পারিবারিক কলহের জের ধরে দা ও খুন্তি নিয়ে সংঘর্ষে জড়ান স্বামী-স্ত্রী। একজন আরেকজনকে এলোপাতাড়ি কোপাচ্ছে দেখে সংঘর্ষ থামাতে মাঝখানে দাঁড়িয়ে যান যুবতী শ্যালিকা। বেসামাল স্বামী-স্ত্রী দুজনের আঘাতের জখম হন সংঘর্ষ থামাতে চেষ্টা চালানো তরুণী। এতে রক্তাক্ত জখম হয়ে তিনজনেরই মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের বালুর মাঠ এলাকায় শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) সন্ধ্যার পর হৃদয় বিদারক এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত রোহিঙ্গারা হলেন, কুতুপালং মেগা ক্যাম্পের ২-ইস্ট ক্যাম্পের ডি-৭ ব্লকের আলী হোসেনের ছেলে নুরুল ইসলাম (৩২), তার স্ত্রী মরিয়ম বেগম (২৬) ও নুরুল ইসলামের শালিকা হালিমা খাতুন (২২)। দাম্পত্য জীবনে নুরুল ইসলাম-মরিয়ম দম্পতির তিন সন্তান রয়েছে।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইনশৃংঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত আমর্ড পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী রোহিঙ্গারা জানান, নিহত নুরুল ইসলাম মাদকাসক্ত ছিলেন। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে পারিবারিক কলহ লেগেই থাকতো। সংসারে তিনজন শিশু সন্তান থাকায় সংসার বিচ্ছেদ না করে সমস্যা সমাধানে বেশ কয়েকবার শালিসি বৈঠকও হয়েছে। বৈঠকের পর কয়েকদিন স্বাভাবিক চললেও সপ্তাহ পার হতেই স্বামী পুরোনো অভ্যাসে জড়ালে দু’জনের কলহ আবারো বাঁধে। এটি যেন নিয়মে পরিণত হয়ে যায়।

তারা আরো জানায়, এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সন্ধ্যায় আবারও তর্কে জড়িয়ে পড়েন স্বামী-স্ত্রী। বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে স্বামী দা ও স্ত্রী খুন্তি নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। স্বামী স্ত্রীকে দা দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে আর স্ত্রীও পাল্টা আঘাত করে স্বামীকে। এটি জানতে পেরে বোন জামাই ও বোনকে থামাতে কোপাকুপির মাঝখানে দাঁড়ায় শ্যালিকা হালিমা। তারা দুজন হালিমাকেও বেপরোয়া আঘাত করে। এতে হালিমা জখম পেয়ে জ্ঞান হারিয়ে পড়ে যান। এরপর একে একে সবাই মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থলে এসে তিনজনকে ক্যাম্পে চলমান হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

পোষ্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর পড়ুন
© কপিরাইটঃ- এন প্লাস টিভি (২০২০-২০২২)
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD